1. admin@sonerbanglanews24.com : admin :
বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ০৭:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সামর্থ্য অনুযায়ী অসহায়দের পাশে দাড়ান- শিক্ষক সমিতির ঈদ সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানেএমপি নাসির ভিজিএফ কার্ড সহ সকল ন্যায্য অধিকার জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছি-এমপি নাসির সাফল্যের ২০ বছরে দেশের অন্যতম বিপিও প্রতিষ্ঠান ফিফোটেক চুরামনকাঠির চুরি যাওয়া ৬ট্রাক কাঠ সীমাখালিতে উদ্ধার কথা সাহিত্যিক রেজা নুর এর ১৬তম কাব্যগ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন স্বাস্থ্যমন্ত্রী পুরষ্কার-২২ চৌগাছা ও ঝিকরগাছা উপজেলা যথাক্রমে ১ম ও ৭ম ভাষা শহীদদের প্রতি এমপি নাসির উদ্দীন এর শ্রদ্ধা নিবেদন ‘জয় বাংলা’ কে জাতীয় স্লোগান করার সিদ্ধান্ত মন্ত্রীসভার বৈঠকে বেজিয়াতলা ইংরেজি উচ্চ বিদ্যালয় এর নতুন কমিটি গঠন সাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, নিজে সুস্থ্য থাকুন অন্যদের সুস্থ্য থাকতে সহযোগিতা করুন

স্বাস্থ্যমন্ত্রী পুরষ্কার-২২ চৌগাছা ও ঝিকরগাছা উপজেলা যথাক্রমে ১ম ও ৭ম

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২ এপ্রিল, ২০২২
  • ৮০২ বার পঠিত

“স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাতীয় পুরষ্কার-২০২২” এর ১০ শীর্ষ উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স এর মধ্যে সারা দেশে ১ম স্থান অর্জন করেছে চৌগাছা উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স, যশোর, ২য় স্থান কোটচাঁদপুর উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স, ঝিনাইদহ, ৩য় স্থান কেশবপুর উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স, যশোর, ৪র্থ স্থান কাপাসিয়া উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স, গাজীপুর, ৫ম স্থান অভয়নগর উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স, যশোর, ৬ষ্ট স্থান বানারিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, বরিশাল, ৭ম স্থান ঝিকরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, যশোর, ৮ম স্থান শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, ঝিনাইদহ, ৯ম স্থান কেরানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, ঢাকা এবং ১০ম স্থান মুক্তাগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, ময়মনসিংহ অর্জন করেছে এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রীর হাত থেকে পুরস্কার পেয়েছে।

উল্লেখ্য বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে স্বাস্থ্য অধিদফতর আয়োজিত ‘স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাতীয় পুরস্কার-২০২০’ প্রদান অনুষ্ঠানে এ ঘোষণা দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

এছাড়া বিশেষ ক্যাটাগরিতে ‘স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাতীয় পুরস্কার-২০২০’ পেয়েছে দেশের সবচেয়ে বড় সরকারি হাসপাতাল ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। আর ‘বেস্ট ইনোভেটিভ অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স।

প্রসঙ্গত, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার স্বাস্থ্য ব্যবস্থা গঠনের ছয়টি মূলনীতিকে প্রধান কাঠামো বিবেচনায় নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতর প্রান্তিক পর্যায়ের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, জেলা হাসপাতাল, মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, বিশেষায়িত এবং স্নাতকোত্তর হাসপাতালগুলো থেকে সংগৃহীত তথ্য ও উপাত্তের ভিত্তিতে প্রতিবছর এই জাতীয় পুরস্কারের আয়োজন করে।

স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানগুলোর কর্মদক্ষতা মূল্যায়ন, মর্যাদাক্রম নির্ণয় ও সেই অনুযায়ী পুরস্কার প্রদানের মাধ্যমে সবাইকে পেশাদারিত্বে উদ্বুদ্ধ করা ও উৎসাহ প্রদান করার উদ্দেশ্যে ২০১৪ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কারিগরি সহযোগিতায় ‘হেলথ সিস্টেম স্ট্রেন্থদেনিং’ কার্যক্রম চালু করা হয়।

শীর্ষ তিন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল হিসেবে পুরস্কার পেয়েছে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, বগুড়া ও রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল।

দুটি শীর্ষ বিশেষায়িত স্নাতকোত্তর প্রতিষ্ঠান এবং হাসপাতাল হিসেবে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরো সায়েন্সেস ও হাসপাতাল ও জাতীয় চক্ষুবিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল পুরস্কার পেয়েছে।

বিভাগীয় দুটি শীর্ষ স্বাস্থ্য অফিস হিসেবে খুলনা ও বরিশাল বিভাগীয় স্বাস্থ্য অফিস পুরস্কার পেয়েছে।

শীর্ষ পাঁচ সিভিল সার্জন অফিস হিসেবে পুরস্কার পেয়েছে ঝিনাইদহ, যশোর, সাতক্ষীরা, লক্ষ্মীপুর ও চুয়াডাঙ্গা সিভিল সার্জন অফিস।

পাঁচ শীর্ষ বিভাগীয় হাসপাতাল হিসেবে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল, কক্সবাজার ২৫০ শয্যা জেলা সদর হাসপাতাল, ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল, লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল, আর পিরোজপুর সদর হাসপাতাল পুরস্কার পেয়েছে।

এছাড়া আট শীর্ষ উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স (বিভাগীয়) এবং ১০টি শীর্ষ উপজেলা হেলথ অফিস/কমপ্লেক্স (কমিউনিটি হেলথ সার্ভিস)-কে পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

এদিকে উপজেলা ক্যাটাগরিতে ১ম স্থান অর্জনকারী চৌগাছা উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স, যশোর ও ৭ম স্থান অর্জনকারী ঝিকরগাছা উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স এর সেবা গ্রহনকারী এবং ২(দুই)উপজেলাবাসীদের মধ্যে আনন্দের বন্যা বয়ে যাচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে ঝিকরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা রাশিদুল আলম জানান “আমরা সেবাগ্রহনকারীদের সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে সেবার আওতায় নিয়ে এসেছি। ইউনিয়ন ভিত্তিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়মিত তদারকি করে সেবা পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করছি। করোনাকালীন সময়ে হাসপাতালে অক্সিজেন থেকে শুরু করে নিয়মিত মনিটরিং করেছি। সর্বক্ষেত্রে আমাদের মাননীয় এমপি মহাদয় সর্বোচ্চ সহযোগিতা করেছেন। আমি মনে করি এই অর্জন সম্ভব হয়েছে আমাদের এমপি মহাদয়ের একান্ত সহযোগিতা এবং দিকনির্দেশনার কারনে। ভবিষ্যতে হাসপাতালের সেবার মান আরও বাড়ানোর চেষ্টা করব”

ঝিকরগাছা উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স এ সেবা গ্রহনকারী কয়েকজন রোগীর সাথে কথা বলে জানা গেল এখানে সেবার মান বৃদ্ধি পেয়েছে। পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন পরিবেশ। রোগীদের চিকিৎসাপত্রের সাথে ওষুধও দেওয়া হচ্ছে। এসব কারনে এখানে প্রতিনিয়ত রোগির আনাগোনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে তাদের দাবি এখানে নবীব চিকিৎসক এর পাশাপাশি কিছু বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক প্রয়োজন।

এই ২ হাসপাতালের অর্জন সম্পর্কে ৮৬যশোর-২ আসনের সাংসদ বীরমুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অবঃ) অধ্যাপক ডাঃ মোঃ নাসির উদ্দীন বলেন “আমি নিজে একজন চিকিৎসক। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা যখন আমাকে দেশসেবার সুযোগ করে দিয়েছেন আমি তখন আমার এলাকার উন্নয়নের চেষ্টা করে যাচ্ছি। যার ধারাবাহিকতায় আমাদের ২টি উপজেলা হেলথ কমপ্লেক্স এ আজ সাধারণ মানুষ চিকিৎসা পাচ্ছে। মানুষ এখন সরকারি হাসপাতালের দিকে ঝুকেছে। মানুষের একসময় ধারনা ছিল সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা হয় না, আমি এসে মানুষের সেই ধারণা পালটে দিয়েছি। ভবিষ্যৎ সেবার মান আরও বাড়বে বলে আশাকরি। ”

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ সোনার বাংলা নিউজ ২৪
কারিগরি কালের ধারা ২৪