1. admin@sonerbanglanews24.com : admin :
সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০৫:৩৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সরকারি চাকরির বয়সে ৩৯ মাস ছাড় ইউক্রেনে আরও ৩ লাখ সেনা সমাবেশের ঘোষণা দিলেন পুতিন ছাদখোলা বাস প্রস্তুত নারী ফুটবল দলের জন্য গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের নতুন সচিব কাজী ওয়াছি উদ্দিন। বল্লা ১৬দলীয় ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০২২ এর ২য় ম্যাচে ট্রাইবেকারে জিতল সোনাকুড় ফুটবল একাদশ বল্লা ১৬দলীয় ফুটবল টুর্নামেন্ট এর উদ্ভোধনী ম্যাচে ২-০গোলে মাটিকোমরা ফুটবল একাদশের জয় বেশি ভাবতে গিয়ে সর্বনাশ হয়েছে ভারতের আগষ্টে রেকর্ড পরিমাণ রেমিট্যান্স। ১৯হাজার ৩৬১কোটি টাকা টিকে থাকার লড়াইয়ে আজ শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি বাংলাদেশ – ওপেনিংয়ে পরিবর্তনের আভাস পাকিস্তানের বন্যা ইতিহাসের ভয়াবহতম বন্যা – শাহবাজ, সহায়তার আবেদন জাতিসংঘের

সাতক্ষীরার বৃক্ষপ্রেমী কোহিনূর এর ৪০হাজার তালগাছ রোপন

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৩ আগস্ট, ২০২১
  • ১৮৪ বার পঠিত

ঘূর্ণিঝড় প্রবণ দেশের উপকূলীয় এলাকা সাতক্ষীরায় নিজ উদ্যোগে তালগাছের বীজ রোপণ করে এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন বৃক্ষপ্রেমী শেখ মোঃ কোহনিুর ইসলাম(৪৮)।

সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার আঠারোই গ্রামের মৃত আয়জুদ্দীন শেখের ছেলে কোহিনুর ইসলাম শেখ ১২ বছর বয়স থেকে শুরু করে ব্যক্তিগত ও সামাজিক দায়বদ্ধতামূলক কাজের অংশ হিসাবে এই বৃক্ষ রোপণ করে যাচ্ছেন। জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলার আগাম প্রস্তুতি গ্রহণ প্রকৃতির সৌর্ন্দয, পরিবেশেরে ভারসাম্য রক্ষা এবং সাতক্ষীরা থেকে সবুজ বাংলাদশে গড়তে আজীবন মেয়াদি নিজ এলাকায় প্রথমে বাবলা ও খৈ গাছের হাজার হাজার চারা রোপণ করেন। গত ৫-৭ বছর ধরে উপজেলার আগোলঝাড়ার ঝুঁড়িঝাড়া মাঠের পাশ দিয়ে তালা ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায়, তালার ঝাউতলা মাদ্রাসা থেকে খেজুর বুনিয়া বাজার পর্যন্ত, ইসলামকাটি সরকারি পুকুর পাড়, তালার গোপালপুর খোলা জানালা (ইকোপার্ক) সহ রাস্তার বিভিন্ন জনগুরুত্বর্পূণ স্থানে ৫ কিলোমিটার রাস্তায় তাল গাছ রোপণ করেন।

বৃক্ষরোপণ তার নেশা হয়ে দাঁড়িয়েছে ইতিমধ্যে সে নিজের অর্থায়নে সাতক্ষীরা-খুলনা মহাসড়কে শুভাশুনি বাজার হতে বিনেরপোতা ব্রিজ পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে ১৫ কিলোমিটার তালের আঁটি (বীজ) রোপণ করেন গাছগুলোর এখন সুদৃশ্যমান। বিভিন্ন জনগুরুত্বর্পূণ এলাকায় প্রায় ৪০ হাজারের বেশি তাল গাছের বীজ রোপণ করেছেন। মোঃ কোহনিুর ইসলাম শেখ দরিদ্র পরিবারের সন্তান সে তার সংসার চালানোর পাশাপাশি নিজের উপার্জনের কিছু জমানো টাকা দিয়ে সর্ম্পূণ ব্যক্তি উদ্যোগে চলাচ্ছে এই নীরব বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি। পরিবারের নানা অভাব অনাটনেও তার এ বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি কখনো থেমে যায়নি। অনেকেই মনে করেন তার এই সবুজ কর্মকাণ্ডের জন্য সাতক্ষীরা জেলার ইতিহাসের সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বৃক্ষপ্রমেী হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন। আবার কেউ কেউ তাকে বৃক্ষ পাগল, বৃক্ষবন্ধু, পরিবেশ যোদ্ধা, সাদা মনের মানুষও হিসাবেও ডাকেন।

এ বিষয়ে মোঃ কোহনিুর ইসলাম জানান, ১২ বছর বয়স থেকে তিনি বিভিন্ন জনগুরুত্বপূর্ণ স্থানে বৃক্ষরোপণ করে আসছেন। এই কার্যক্রম করে তিনি অসংখ্য মানুষের ভালোবাসা পেয়েছেন যা তাকে উৎসাহিত ও অনুপ্রাণিত করেছে। সরকারী ভাবে সার্বিক সহযোগিতা পেলে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ জনগুরুত্বপূর্ণ স্থানে বৃক্ষরোপণের মাধ্যমে সবুজ শ্যামল ও সুন্দর বাংলাদশে উপহার দিতে চান তিনি এবং সাতক্ষীরা জেলা থেকে বাংলাদেশেকে বিশ্বের সবুজ রোল মডেল হিসাবে তুলে ধরতে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত এমন কার্যক্রম চালিয়ে যাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ সোনার বাংলা নিউজ ২৪
Thems Customized By Shakil IT Park